বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:০৮ অপরাহ্ন
Logo
নোটিশ :
Wellcome to our website...

অনলাইনে জমির খতিয়ান যাচাই করার পদ্ধতি।

মোঃ নাছির উদ্দিন / ১২৬৫ বার
আপডেটের সময় সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২১

যে কোনও জমির খতিয়ান বা পর্চা এখন তাৎক্ষণিক ভাবে অনলাইনে পাওয়া যাবে। জমির মালিকানা যাচাইকরণ বা অনলাইনে জমির খতিয়ান বা পর্চা বা জমির কাগজ পত্র ডাউনলোড বিষয়ে লেখা আমাদের আজকের এই পোস্টে আপনাকে স্বাগতম।

আজ আমরা দেখব কীভাবে ঘরে বসে কম্পিউটার বা স্মার্টফোন থেকে জমির মালিকানা যাচাই বা জমির খতিয়ান অথবা পর্চা বা ‘জমির কাগজ পত্র অনলাইনে পাওয়া যায়’।

পোস্টটি শেষ পর্যন্ত পড়লে আপনি আপনার বাবার নামে, আপনার দাদার নামে, আপনার নামে অথবা যে কারো নামে কত টুকু জমি আছে আপনি তা সহজে জানতে পারবেন। আশা করি আপনাকে আর কোন জামেলায় পড়তে হবে না এই পোষ্টে আপনার জমি সংক্রান্ত সমস্যার সমাধান হবে যাবে।

অনলাইনে খতিয়ান দেখাতে যা যা লাগবে

অনলাইনে জমির মালিকানা যাচাই করতে আপনার বিভাগ, জেলা, উপজেলা, গ্রাম, মৌজা, দাগ নাম্বার এবং জমির মালিকের নাম লাগবে। অথবা আপনি যদি আর এস খতিয়ান নাম্বার জেনে থাকেন তাহলে জমির মালিকের নাম বের করতে পারবেন।

১. প্রথমে https://www.eporcha.gov.bd/khatian-search-panel লিংকে ক্লিক করুন।

২. এখানে প্রথমে বিভাগ, এরপর জেলা, এরপর উপজেলা এবং সর্বশেষ মৌজা বাছাই করুন। (তবে তার আগে আপনার জমির জরিপ ধরণ অনুযায়ী বিএস, সিএস, বিআরএস, আরএস, এসএ, পেটি, দিয়ারা; এই গুলোর ভিতর যেইটি হবে সেইটি সিলেক্ট করে নিন)

৩. এরপর আপনার জমির খতিয়ান যাচাই করার চারটি অপশন পাবেন

(ক) খতিয়ান নং অনুযায়ী
(খ) দাগ নং অনুযায়ী
(গ) মালিকানা নাম অনুযায়ী
(ঘ) পিতা/স্বামীর নাম অনুযায়ী

এই চার মাধ্যমের প্রত্যেকটির বাম পার্শ্বে একটি ছোট গোল ঘর বা বৃত্ত রয়েছে। উপরের চার পদ্ধতির যে পদ্ধতিতে আপনি সার্চ করতে চান, তা বাম পার্শ্বের গোল ঘরে মাউস দিয়ে ক্লিক করুন। এরপর উপরের চার পদ্ধতির মধ্যে আপনি যে পদ্ধতিতে ক্লিক করেছেন তার ঠিক নিচে একটি ছোট বক্সটি আসবে, বক্সটি পূরণ করুন। অর্থাৎ খতিয়ান নম্বর সিলেক্ট করে থাকলে খতিয়ান নম্বরটি বক্সে লিখুন, দাগ নম্বর সিলেক্ট করে থাকলে দাগ নম্বরটি বক্সে লিখুন, মালিকের নাম সিলেক্ট করে থাকলে মালিকের নাম বক্সে লিখুন, মালিকের পিতা/স্বামীর নাম সিলেক্ট করে থাকলে পিতা/স্বামীর নাম বক্সে লিখুন।

এরপর নিচে দুটি সংখ্যা যোগ করতে বলা হবে। সংখ্যা দুটি যোগ করে যোগফল নিচের বক্সে লিখুন। সর্বশেষ ‘খুজুন’ অপশনে ক্লিক করুন।

এভাবে আপনি আপনার পছন্দের খতিয়ান দেখতে বা যাচাই করতে পারবেন।

তারপর আপনি চাইলে সম্পূর্ন ফ্রিতেই জমির খতিয়ানটি পিডিএফ ফরমেটের অনলাইন কপি ডাউনলোড করতে পারবেন এবং জমির অরজিনাল খতিয়ানের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

খতিয়ানের সার্টিফাইড কপির জন্য কিভাবে আবেদন করবেন:

অনলাইনে খতিয়ান দেখার পাশাপাশি খতিয়ানের সার্টিফাইড কপির জন্য আবেদন করুন এ ক্লিক করে ফর্ম পূরন করতে হবে। এর জন্য আপনাকে নিচের ধাপগুলো অনুসরন করতে হবে।
  • অনলাইন কপি অথবা সার্টিফাইড কপি যেটা আপনি নিতে চান সেটা সিলেক্ট করতে হবে।
  • অফিস কাউন্টার নাকি ডাকযোগে আপনার খতিয়ানের কপি পেতে চান তা সিলেক্ট করতে হবে।
  • নাম (ইংরেজি) ,মোবাইল নম্বর দিতে পেমেন্টে ক্লিক করে পেমেন্ট করতে হবে।
এরপর সংশ্লিষ্ট জেলা অফিস থেকে বা আবেদনকারীর প্রত্যাশিত ঠিকানায় ডাকযোগে নির্দিষ্ট দিনের মধ্যে খতিয়ানের সার্টিফাইড কপি সরবরাহ করা হবে। আশা করছি আপনারা বুঝতে পারছেন কিভাবে অনলাইনে খতিয়ান দেখা যায় ও জমির মালিকানা যাচাই করা যায়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

আরো পড়ুন







Theme Created By ThemesDealer.Com
x
x