শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:২১ অপরাহ্ন
Logo
নোটিশ :
Wellcome to our website...

অনলাইনে e-Tin রেজিষ্ট্রেশন ও রি-রেজিষ্ট্রেশন করার নিয়ম

মোঃ নাছির উদ্দিন / ৩২১ বার
আপডেটের সময় মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০২০

 

করদাতা হিসাবে রেজিষ্ট্রেশন প্রক্রিয়া দ্রুত ও সহজতর করতে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড ই-টিআইএন করদাতা হিসাবে (e-TIN) রেজিষ্ট্রেশন পদ্ধতি প্রবর্তন করেছে। এ পদ্ধতিতে কয়েকটি সহজ ধাপ পেরোনেরার মাধ্যমে আপনি পেতে পারিন ১২ ডিজিটের একটি নতুন টিআইএন। বর্তমানে যাদের টিআইএন আছে, তাঁদেরকেও নতুন পদ্টধতির টিআইএন এর জন্য রি-রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। এক্ষেত্রে জাতীয় চরিচয়পত্র, মোবাইল ফোন নম্বর ও কোম্পানীর ক্ষেত্রে RJSC এর নিবন্ধন নম্বর প্রয়োজন হয়।

 

 

নতুন পদ্ধতিতে টিআইএন রেজিস্ট্রেশন ও রি-রেজিস্ট্রেশনের শুরুতে প্রত্যেককে প্রথমে অ্যাকাউন্ট তৈরী করতে হবে। অ্যাকাউন্ট তৈরীর নিয়ম নিম্নরূপঃ

•    www.incometax.gov.bd  ওয়েবসাইটটে প্রবেশ করুন।
•    হোমপজের Register বাটনে ক্লিক করলে ‘রেজিস্ট্রেশন’ ফরম ওপেন হবে। ফরমের নির্ধারিত শুন্যস্থানগুলো পূরণ শেষে Register বাটনে ক্লিক করুন।
•    ফরমে প্রদানকৃত আপনার মুঠোফোন নম্বরে তাৎক্ষনিকভাবে একটি কোর্ড পৌছে যাবে। পর্দায় প্রদর্শিত ডায়ালগ বক্সে মুঠোফোনে প্রেরণকৃত কোডটি প্রদান করুন। এরপর Register বাটনে ক্লিক করলেই পর্দায় দেখতে পাবেন।“Welcome to Taxpayer’s Identification Number (TIN) Registration/Re- Registration”

বাংলাদেশী নাগরিকের জন্য টিআইএন রেজিস্ট্রেশন ও রি-রেজিষ্ট্রেশনের নিয়মঃ

•    TIN Application মেন্যুতে ক্লিক করুন। এবার Registration/Re- Registration ফরমে প্রদর্শিত শূন্যস্থান পূরণ করে Go to Next  চাপুন।নূতন করদাতাগণ Registration  বাটনে এবং পুরাতন করদাতাগণ যাদের TIN  নম্বর আছে তারা Re- Registration বাটনে ক্লিক করতে হবে।
•    Basic Information  ফরমে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে শূন্যস্থান পূরণ করুন  এবং Go to Next   বাটনে ক্লিক করুন।
•    Final preview  তে ফরমে প্রদর্শিত আপনার দেয়া তথ্যগুলো সঠিক আছে কিনা ,  তা শেষবারের মতো যাচাই করুন । সবকিছু ঠিক থাকলে, Final preview এর একেবারে নীচে চেক বক্সে টিক চিহ্ন দিন।
•    এরপর Submit Application  বাটনে ক্লিক করলেই রেজিস্ট্রেশন/রি-রেজিস্ট্রেশনকারী নতুন ১২ ডিজিটের টিআইএন। তবে  প্রাপ্তবয়স্ক ও অপাপ্তবয়স্ক আবেদনকারী , যার জাতীয় পরিচিতি  নম্বর নেই এবং যিনি পাসপোর্টের মাধ্যমে রেজিস্ট্রেশন/রি-রেজিস্ট্রেশন করতে চান, তিনি একটি Ticket পাবেন। Ticket প্রিন্ট করে তাতে উল্লিখিত নিয়ম অনুসরন করে টিকেটে উল্লেখিত আয়কর কার্যালয়ে যোগাযোগ করতে হবে।
লিমিটেড কোম্পানীসহ রেজিষ্টার অব জয়েন্ট স্টক কোম্পানীজ এন্ড ফার্মস ( RJSC) এ রেজিষ্ট্রেশনকৃত এবং অ-রেজিস্ট্রেশনকৃত ফার্মের ক্ষেত্রে টিআইএন রেজিষ্ট্রেশন ও রি-রেজিষ্ট্রেশনের নিয়মঃ

•    RJSC তে নিবন্ধিত কোম্পানী/ফার্ম এর টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য করদাতা প্রতিষ্ঠানের নাম, পদবী, মোবাইল নম্বর ও ই-মেইল ঠিকানা এবং ফার্মের প্রত্যেক অংশীদারের নবপ্রবর্তিত ১২ ডিজিটের টিআইএন।
•    RJSC  তে রেজিষ্ট্রেশনকৃত নং এরূপ ফার্মের টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নাম, পদবী, মোবাইল নম্বর ফ্যাক্স ও ই-মেইল ঠিকানা এবং ফার্মের প্রত্যেক অংশীদারের নবপ্রবর্তিত ১২ ডিজিটের টিআইএন।
•    Final preview  তে ফরমে প্রদর্শিত আপনার দেয়া তথ্যগুলো সঠিক আছে কিনা ,  তা শেষবারের মতো যাচাই করুন । সবকিছু ঠিক থাকলে, Final preview এর একেবারে নীচে চেক বক্সে টিক চিহ্ন দিন।
•    সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে আবেদনকারী কোম্পানী/ফার্ম নতুন টিআইন সম্বলিত সার্টিফিকেট পাবেন।
অধিকতর তথ্যের জন্য ওয়েবসাইট www.nbr-bd.org.bd ব্যবহার করুন। আয়কর প্রদান, রিটার্ন দাখিল ও আয়কর আইন সংক্রান্ত কোন জিজ্ঞাসা থাকলে সরাসরি যে কোন পর্যায়ের কর কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি সহযোগিতা করবেন।

প্রাপ্ত বয়ষ্ক ও অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক বাংলাদেশী নাগরিকের জন্য টিআইএন রেজিষ্ট্রেশন ও রি-রেজিষ্ট্রেশনের নিয়ম :

– TIN Application মেনুতে ক্লিক করুন। এবার Registration/Re-registration ফরমে প্রদর্শিত শূন্যস্থান গুলো পূরণ করে Go to Next চাপুন।
– Basic Information ফরমে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে শূন্যস্থানগুলো পূরন করুন এবং বাটনে Go to Next ক্লিক করুন।
– প্রাপ্ত বয়ষ্ক ও অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক বাংলাদেশী নাগরিকের (যাদের জাতীয় পরিচিতি নম্বর নেই)। টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের ক্ষেত্রে এ পর্যায়ে এসে ডিজিটাল ফরমেটে সদ্য তোলা এক কপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি আপলোড করতে হবে।
– Final Preview তে ফরমে প্রদর্শিত আপনার দেয়া তথ্যগুলো সঠিক আছে কি না, তা শেষ বারের মতো যাচাই করুন। সবকিছু ঠিক থাকলে, Final Preview এর একেবারে নিচে চেক বক্সে টিক চিহ্ন দিন।
– Submit Application বাটনে ক্লিক করলেই রেজিষ্ট্রেশন / রি-রেজিষ্ট্রেশনকারী নতুন ১২ ডিজিটের টিআইএন পাবেন। তবে প্রাপ্ত বয়ষ্ক ও অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক আবেদনকারী, যার জাতীয় পরিচিতি নম্বর নেই এবং যিনি পাসপোর্টের মাধ্যমে রেজিষ্ট্রেশন ও রি- রেজিষ্ট্রেশন করতে চান, তিনি একটি Ticket পাবেন। Ticket প্রিন্ট করে তাতে উল্লেখিত নিয়ম অনুসরন করে বর্নিত ঠিকানায় যোগাযোগ করতে হবে।

লিমিটেড কোম্পানিসহ রেজিস্টার অব জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ এন্ড ফার্মস (RJSC) এ রেজিষ্ট্রেশনকৃত এবং অ-রেজিষ্ট্রেশনকৃত ফার্মের ক্ষেত্রে টিআইএন রেজিষ্ট্রেশন ও রি- রেজিষ্ট্রেশনের নিয়ম:

– পূর্বের বর্ণনা অনুযায়ী টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের বিভিন্ন ধাপ অনুসরন করুন।
– (RJSC) তে নিবন্ধত কোম্পানি/ ফার্মের টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য করদাতা প্রতিষ্ঠানের নাম, ইনকর্পোরেশন/ রেজিষ্ট্রেশনের নম্বর, ইনকর্পোরেশন/ রেজিষ্ট্রেশনের তারিখ, কোম্পানি/ফার্মের ক্ষমতা প্রাপ্ত ব্যক্তির নাম, পদবী, মোবাইল নম্বর, ফ্যাক্স নম্বর ও ই-মেইল ঠিকানা এবং ফার্মের প্রত্যেক অংশীদারের নবপ্রবর্তিত ১২ ডিজিটের টিআইএন।
– (RJSC) তে রেজিস্ট্রশনকৃত নয় , এরূপ ফার্মের টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য ক্ষমতা প্রাপ্ত ব্যক্তির নাম, পদবী, মোবাইল নম্বর, ফ্যাক্স নম্বর ও ই-মেইল ঠিকানা এবং ফার্মের প্রত্যেক অংশীদারের নবপ্রবর্তিত ১২ ডিজিটের টিআইএন।

– সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে আবেদনকারী কোম্পানি/ ফার্ম নতুন টিআইএন সম্বলিত সার্টিফিকেট পাবেন।

প্রাপ্ত বয়ষ্ক ও অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক বিদেশী নাগরিক, ব্যক্তিসংঘ,অবিভক্ত হিন্দু পরিবার, স্থানীয় কর্তৃপক্ষ, আইন দ্বারা সৃষ্ট কৃত্রিম ব্যক্তিসত্ত্বা, কো-অপারেটিভ সোসাইটি এবং আয়কর অধ্যাদেশের ধারা ২(২০) অনুযায়ী গঠিত অন্যান্য কোম্পানি এর টিআইএন রেজিষ্ট্রেশন ও রি-রেজিষ্ট্রেশনের নিয়ম :

প্রাপ্ত বয়ষ্ক বিদেশী নাগরিকের টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য পাসপোর্ট নম্বর, ভিসা নম্বর, বিনিয়োগ বোর্ড হতে প্রাপ্ত রেজিষ্ট্রেশন নম্বর (প্রযোজ্যতা অনুযায়ী), সদ্য তোলা ডিজিটাল ফরমেটের পাসপোর্ট সাইজ ছবি, পূর্বের টিআইএন (রি-রজিস্ট্রেশনের ক্ষেত্রে) এবং অপ্রাপ্ত বয়ষ্ক বিদেশী নাগরিকের টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য নিজের এবং অভিভাবকের পাসপোর্ট নম্বর, ভিসা নম্বর, সদ্য

– ব্যক্তিসংঘ/অবিভক্ত হিন্দু পরিবারের ক্ষেত্রে টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য ক্ষমতাপ্রাপ্ত ব্যক্তি/কর্তার নবপ্রবর্তিত ১২ ডিজিটের টিআইএন পূর্বের টিআইএন (রি-রজিস্ট্রেশনের ক্ষেত্রে) প্রদান করতে হবে।
– স্থানীয় কর্তৃপক্ষ, আইন দ্বারা সৃষ্ট কৃত্রিম ব্যক্তি সত্ত্বা, কো-অপারেটিভ সোসাইটি এবং আয়কর অধ্যাদেশের ধারা ২(২০) অনুযায়ী গঠিত অন্যান্য কোম্পানি এর টিআইএন রেজিষ্ট্রেশনের জন্য করদাতা প্রতিষ্ঠানের নাম, ঠিকানা, ফ্যাক্স নম্বর ও ই-মেইল আইডি, পূর্বের টিআইএন (রি-রজিস্ট্রেশনের ক্ষেত্রে) প্রদান করতে হবে।

– উপরে উল্লেখিত আবেদনকারী System Generated একটি Ticket পাবেন। Ticket প্রিন্ট করে তাতে উল্লিখিত নিয়ম অনুসরণ করে বর্নিত ঠিকানায় যোগাযোগ করতে হবে।

আপনার ই-টিআইএন তৈরী করতে সমস্যা হলে এই ভিডিওটি অনুসরণ করতে পারেন

নতুন নতুন টিপস্ ও রেডিমেট ডকুমেন্ট ফরমেট পেতে 
আমার ফেসবুক পেজে লাইক দিন  

তথ্য সংগ্রহ ও উপস্থাপনায়: মোঃ নাছির উদ্দিন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো পড়ুন
Theme Created By ThemesDealer.Com
x
error: Content is protected !!
x
error: Content is protected !!